মাশরুমের বালাই বলতে এমন সব জীবন্ত বস্তুকে বোঝায় যা চাষ করা মাশরুম নষ্ট করে উৎপাদনের পরিমাণ অনেক অংশে কমিয়ে দেয় এবং মাশরুমের গুণগত মান নষ্ট করে।

যেসব মাছি মাশরুমের ক্ষতি করে থাকে তা নিম্নে দেখানো হল……..

১। স্ক্যারিক মাছিঃ

এই মাছি দেহ নরম, গাঢ় বাদামী রংগের প্রায় 1.5- 3.5 মিলি মিটার পর্যন্ত লম্বা এবং খাড়া সূর বিশিষ্ট। এই মাছি সরাসরি ও কিড়া অবস্থায় মাশরুমের ক্ষতি সাধন করে থাকে। এর কীড়া গুলির মাথা কালো রংগের বলে সহজে চেনা যায়। পিনহেড বা প্রাইমোডিয়া স্ট্রেজে এই মাছি সবচেয়ে বেশি ক্ষতি করে।

এর কীড়া পিনহেডের ভিতরে ঢুকে এর নরম ট্যিসু গুলো খেয়ে ফেলে। এ কারনে মাশরুমের ফাঁপা ও স্পনজি হয়ে সর্বশেষে পুরো মাশরুমটিই নষ্ট হয়ে যায় অথবা পচে যায়। এছাড়া এ মাছি অন্যান্য ছত্রাকের বাহক হিসাবে কাজ করে বিধায় এর মাধ্যমে ছত্রাক জাতীয় রোগ ছড়ায়।

২। ফোরিড ফ্লাইঃ

এ মাছি স্ক্যারিক মাছি থেকে একটু ছোট ও শক্ত দেহ বিশিষ্ট 1.9 থেকে 2 মিলিমিটার লম্বা। হালকা বাদামী বর্ণের এবং মুখে সূরও ছোট। এর কীড়া মাথায় কোন কালো দাগ থাকে না। এই মাছির কীড়া মাশরুমের সাদা মাইসিলিয়াম খেয়ে ফেলে যে কারনে মাশরুমের পিনহেড বের হতে পারে না, কেজিং সয়েল ও কম্পোস্ট দুই জায়গায় আক্রান্ত করে এবং উৎপাদন লক্ষ্যনীয়ভাবে কমে যায়। বর্ষাকাল ও শরৎকালে এর আক্রমন বেশি হয়। বাটন মাশরুমের ক্ষেত্রে ৪৬% এবং বর্ষাকালে ওয়েস্টার মাশরুমে ১০০% ফলন কমার দৃষ্টান্ত রয়েছে। তবে স্ক্যারিক মাছির মত কোন ক্ষতিকর ছত্রাক বহন করে না।

৩। সেসিড মাছিঃ

পূর্ণাঙ্গ মাছি কালচে রংগের ফোরিডের লার্ভা অপেক্ষা ক্ষুদ্র, সামনে ও পেছনে অংশ সূচালো। এই মাছির লার্ভা মাশরুমের মাইসেলিয়া খেয়ে ফেলে এবং পূর্ণাঙ্গ মাশরুম থেকে রস শোষণ করে নেয়। প্রজনন ক্ষমতা অনেক বেশি বলে এর ক্ষতির মাত্রা অনেক বেশি। বিভিন্ন প্রজাতির মধ্যে সবচেয়ে ক্ষতিকর এবং বিরাজমান প্রজাতির হলো Heperopeza pygmaea

৪। লেপটোসেরাঃ

এ মাছি দেখতে আকারের ছোট, চোখ দুটি লাল টকটকে দেখে সহজে চেনা যায়। এ মাছির পাখার উপরে দাগ থাকে। এ মাশরুমের কীড়া প্যাকেটের মাইসেলিয়া এবং পিনহিড খেয়ে ফেলে। এই মাছি মাশরুমের ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া বহন করে।

এক নজরে মাছি মাশরুম চাষে যে সব সমস্যার সৃষ্টির করেঃ

সুতরাং মাছির ব্যবস্থাপনা মাশরুম চাষের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

 

অনলাইনে মাশরুম কোথায় পাওয়া যায়ঃ

দেশের খুব কম যায়গায় এই মাশরুম পাওয়া যাআয় তবে অনলাইনে অর্ডার করলে আপনি মাশরুম পেয়ে যাবেন আপনার বাসায় । অর্ডার করতে নিচে দেয়া মাশরুম লেখা লিঙ্কে ক্লিক করুনঃ

মাশরুম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *