মাঁচা পদ্ধতিতে মুরগি পালন পদ্ধতি

মাঁচা পদ্ধতিতে মুরগি পালন পদ্ধতি
18th May 2020 0 Comments
 

যারা নতুন করে মুরগীর খামার গড়তে চাচ্ছেন তাদের খামার শুরু করার পূর্বে প্রথমেই মাথায় রাখতে হবে মুরগীর খামার গড়তে সঠিক স্থান নির্বাচন কৌশল প্রথমেই জানা উচিত। কারন একটি খামার গড়ার পূর্ব সর্ত হোল ভাল একটি স্থান নির্বাচন করা। তাইতো আজকের লেখায় আমরা আপনাদের জানাবো মাঁচা পদ্ধতিতে মুরগি পালন পদ্ধতি।

আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক মাঁচা পদ্ধতিতে মুরগি পালন পদ্ধতিঃ


১) যে সব এলাকায় বৃষ্টির পানি জমে বা মাটি অধিক আদ্র থাকে সেই সব এলাকাতে মাঁচা পদ্ধতিতে মুরগি পালন করা উচিৎ।

২) বাঁশ বা কাঠ দিয়ে সহজেই মাঁচা তৈরি করা যায়।

৩) মাঁচার বাঁশ বা কাঠের বাতা ১ ইঞ্চি ১-২ সেঃ মিঃ করে ফাকা রাখা হয় যাতে মুরগির বিষ্টা সহজেই নিচে পড়ে যেতে পারে।

৪) মাঁচার উচ্চতা মাটি থেকে ২.৫-৩.০ ফুট হতে হবে যাতে করে মাঁচার নীচ দিয়ে বাতাস প্রবাহিত হয়ে মুরগির বিষ্টা শুকাতে পারে।

৫) মাঁচা পদ্ধতিতে উলম্ব এবং আড়াআড়ি বাতাস প্রবাহের কারনে ঘরে স্বাস্থ্য সম্মত পরিবেশ বজায় থাকে এবং মুরগি আরাম বোধ করে।

৬) মাঁচা পদ্ধতিতে লিটার দ্রব্যের দরকার হয় না এবং রোগ ব্যাধিও কম হয়।

৭) মাঁচা সপ্তাহে অন্তত একবার পরিষ্কার করে জীবানুনাশক দিয়ে মুছে দিতে হবে।

৮) মাঁচায় ময়লা কোন আধা ধারালো জিনিশ দিয়ে চেঁছে ফেলে দিতে হবে।

৯) মাঁচার নিচে মেঝে পাকা করা উচিৎ, এতে লিটার সরানো সুবিধাজনক এবং পোকা কম হয়।

১০) মাঁচা পদ্ধতিতে মুরগি পালনের ক্ষেত্রে মাঁচার নীচের বর্জ্য পদার্থ নিয়মিত পরিষ্কার করতে হবে এবং চুন ছিটিয়ে দিয়ে মাটি জীবানুমুক্ত করতে হবে।

১১) ৫০০ মুরগি পালনের জন্য উপযোগী ঘরের মাঁচার নীচে ৩০-৩৫ কেজি চুন ছিটিয়ে জীবানুমুক্ত করতে হবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published.