বাজরিগার এর খাবার তালিকা

19th January 2020 0 Comments

বাজরিগার পৃথিবীর অন্যতম জনপ্রিয় পোষা পাখি। বাজরিগার অস্ট্রেলিয়ার পূর্ব ও দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূল অঞ্চলে বনাঞ্চলের পাখি। বর্তমানে এই পাখি পালন কারীর সংখ্যা বাংলাদেশে বেড়েই যাচ্ছে, এই পাখি খাঁচায় পালন করা যায়। অসাধারণ সুন্দর এই পাখিটি যদি সঠিক নিয়মে লালন পালন করা যায় তা আপনাকে ও আপনার পরিবারকে যেমন আনন্দ দিবে সেই সাথে ভালো পরিবেশ নিশ্চিত হলে ডিম দিয়ে বাচ্চাও উপহার দিবে। তবে এই পাখি লালন পালনের বেশ কিছু নিয়ম আছে, সাধারণ পাখিদের চেয়ে একটু ভিন্ন নিয়ম অনুসরণ করতে হয়। সাধারণত খাঁচায় পালা বাজরিগার পাখি লম্বায় ৭ থেকে ৮ ইঞ্চি হয়ে থাকে। আর খাঁচায় পালন করা পাখির ওজন ৩৫ থেকে ৪০ গ্রাম পর্যন্ত হয়। বাজরিগার প্রাকৃতিকভাবে সবুজ ও হলুদের সঙ্গে কালো রংয়ের এবং সাদা ও দুসর কালারের হয়ে থাকে। এছাড়াও থাকে নীল, সাদা, হলুদ রংয়ের ছোপ। তবে আমি আজকে খুব সাধারণ একটি বিষয় নিয়ে কথা বলব, তা হল প্রতিদিন বাজরিগার এর খাবার বা সিডমিক্স এ কি কি থাকতে পারে এবং কি পরিমানে থাকতে পারে আর অন্যান্য কি খাবার দেয়া যেতে পারে।

বাজরিগার এর গৃষ্মকালীন খাদ্য তালিকায় যেসব শস্যদানা রাখা যায় তার ৫ কেজি খাবারের মিশ্রণের উপকরণ এবং পরিমাণ ।
৫ কেজি সিডমিক্স এ যা যা থাকতে পারে-
১। কাউন-৩ কেজি
২। চিনাঃ ০.৫ কেজি
৩। গুজি তিলঃ ০.২৫ কেজি
৪। পোলাও চালের ধানঃ ১ কেজি
৫। ক্যানারি সিডঃ ০.২৫ কেজি

এগুলার বাইরে অন্যকিছু দরকার নেই , সূর্যমুখির বীজ বারজিগার কে দেয়া উচিত নয় কারণ এটা বাজরিগারের এর শরীরে ফ্যাট বাড়ায় এবং অস্বাস্থকর।

অন্যান্য খাবারঃ
সিদ্ধ ডিম,পালং শাক,কলমি
শাক,বরবটি,মটরশুটি,গাজর,আপেল এগুলা কাচা
দেয়া যায় মাঝে মাঝে ।
মাঝে মাঝে খাটি মধু এবং ঘৃতকুমারির শাস
পানিতে মিশিয়ে দিতে পারেন ।

Leave a Comment

Your email address will not be published.