ঝিঙ্গা বাংলাদেশের একটি জনপ্রিয় গ্রীষ্মকালীন সবজি। তবে এটি গ্রীষ্ম ও বর্ষা উভয় মৌসুমে চাষ করা হয়। ঝিংগায় প্রচুর পরিমান ক্যারোটিন ও ক্যালসিয়াম রয়েছে। আমাদের দেশে প্রায় সব এলাকাতেই ঝিঙার চাষ করা হয়। ঝিঙা চাষের সুবিধা হচ্ছে যে কোন মাটিতে ঝিঙার চাষ করা যায়।

ঝিঙ্গা বীজের বৈশিষ্ট্য

ভালো বীজ নির্বাচন করতে হবে।সাধারনত নিম্নোক্ত বৈশিষ্ট্যগুলো ভালো বীজ নির্বাচনে সহায়ক।

বীজের হারঃ

প্রতি আইলে ১০ থেকে ২২টি গাছ লাগানো যেতে পারে।

বীজ শোধনঃ

ভিটাভেক্স ২০০ / টিলথ অনুমোদিত মাত্রায় ব্যবহার করে বীজ শোধন করা যায়।

বপন ও রোপন এর সময়ঃ

ফেব্রুয়ারি থেকে মার্চ মাস পর্যন্ত ঝিঙা চাষের জন্য বীজ বপন করা যায়।

 

অনলাইনে বীজ কোথায় পাওয়া যায়ঃ

দোকানের পাশাপাশি এখন অনলাইনে বীজ কিনতে পারবেন। কিনতে নিচে বীজ লেখা লিঙ্কের উপর ক্লিক করুনঃ

বীজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *