ঘাড় ব্যথা কমাতে গরম তেলের ম্যাসাজ

25th November 2019 0 Comments

আমাদের বেশির ভাগ মানুষই জীবনের কোনো এক সময় ঘাড়ের ব্যাথায় ভোগেন। মেরুদণ্ডের ঘাড়ের অংশকে মেডিক্যাল ভাষায় সারভাইক্যাল স্পাইন বলে। মেরুদণ্ডের ওপরের সাতটি কশেরুকা ও দুই কশেরুকার মাঝখানের ডিস্ক, পেশি ও লিগামেন্ট নিয়ে সারভাইক্যাল স্পাইন বা ঘাড় গঠিত। মাথার হাড় (স্কাল) থেকে মেরুদণ্ডের সপ্তম কশেরুকা পর্যন্ত ঘাড় বিস্তৃত। আট জোড়া সারভাইক্যাল স্পাইন নার্ভ (স্নায়ু) ঘাড়, কাঁধ, বাহু, নিচু বাহু এবং হাত ও আঙুলের চামড়ার অনুভূতি ও পেশির মুভমেন্ট প্রদান করে। এ জন্য ঘাড়ের সমস্যায় রোগী ঘাড়, কাঁধ, বাহু ও হাত বা শুধু হাতের বিভিন্ন উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হন। ঘাড়ের সমস্যা পুরুষের তুলনায় নারীদের বেশি হয়।

ভুল অঙ্গবিন্যাস, আঘাতের কারণে অনেক সময় ঘাড়ে ব্যথা হয়। ঘাড়ে ব্যথার সমস্যা খুব বেশি হলে অবশ্যই চিকিৎসকের কাছে যেতে হবে।  তবে তার আগে আপনি বাসায় এই সমস্যা সমাধানে আমাদের লেখা গরম তেলের ম্যাসাজ পদ্ধতি অনুসরণ করে দেখতে পারেন।

 

 

চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক ঘাড় ব্যথা কমাতে গরম তেলের ম্যাসাজ পদ্ধতিঃ

 

(১) সরিষার তেল বা নারকেল তেল গরম করুন।

(২) কয়েক মিনিট এটি দিয়ে ম্যাসাজ করুন।

 

ঘাড় ব্যথা কমাতে গরম তেলের ম্যাসাজ খুব উপকারী। ধীরে ধীরে ম্যাসাজ করা রক্ত সঞ্চালন বাড়ায় এবং ব্যথা কমায়। এছাড়াও আপনার যদি ঠান্ডার সমস্যা না থাকে তাহলে আপনি আইস প্যাক পদ্ধতি অনুসরণ করতে পারেন সেক্ষেত্রে কিছু বরফের টুকরো একটি তোয়ালের মধ্যে নিয়ে সেটি আক্রান্ত স্থানে ১৫ মিনিট রেখে দিন। দিনে ২/৩ বার এই পদ্ধতি অনুসরণ করুন। এই পদ্ধতি অবলম্বন করেই আপনি বাসায় আপনার ঘাড়ে ব্যথা সমস্যা সমাধান করতে পারেন আর ব্যথা বেশি হলে অবশ্যই ডাক্তারের শরণাপন্ন হবেন।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published.