গাব ফল

14th November 2019 0 Comments

গাব আমাদের অনেকর পরিচিত দেশীয় একটি ফল। এটি একটি সুস্বাদু, মিষ্টি এবং কোষযুক্ত ফল। আমাদের দেশে প্রচুর গাব গাছ দেখতে পাওয়া যায়। গাব গাছ সর্বোচ্চ ৩৫ মিটার পর্যন্ত লম্বা হতে পারে। এর কান্ড কালচে, যার ব্যাস ৭০ সে.মি. পর্যন্ত হতে পারে। গাব পাকলে এর রঙ হয় গাঢ় লাল। খোসার উপরটা মখমলের মত। ফলের ভেতরটা সাদা। আপেলের আকারের এই ফলগুলো গোলাকার হয় প্রায় ৩-৪ ইঞ্চি লম্বা ও ২-৪ ইঞ্চি ব্যাসযুক্ত এবং ওজনে ১০০ গ্রাম থেকে ৫০০ গ্রাম পর্যন্ত হয়।এটি বহুল পরিমাণে বাজারজাত করা হয় এবং জনপ্রিয় একটি ফল। গাব ফল পুষ্টিগুণে ভরপুর এবং সেই সাথে এর রয়েছে অনেক উপকারীতাও।

 

পুষ্টিগুণঃ

 

দেখতে খুব সাধারণ হলেও পুষ্টগুণে গাব কিন্তু মোটেও সাধারণ নয়। বরং অন্যান্য দামী ফলের চেয়ে এতে পুষ্টিগুণ অনেক বেশি। দেখা গেছে যে, প্রতি ১০০ গ্রাম গাব ফলে পানি ৮৪.৩ গ্রাম, এনার্জি ৫০৪ কিলোক্যালরি, আমিষ ২.৮ গ্রাম, চর্বি ০.২ গ্রাম, শর্করা ১১.৮ গ্রাম, ফাইবার বা আঁশ ১.৮ গ্রাম, চিনি ১১.৪৭ ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ১১.৪৭ গ্রাম, ক্যালসিয়াম ৪৬ মিলিগ্রাম, ভিটামিন এ ৩৫ আইইউ, ফসফরাস ১৮ মিলিগ্রাম, আয়রন ০.৬ মিলিগ্রাম, থায়ামিন ০.০২ মিলিগ্রাম, ভিটামিন সি ১৮ মিলিগ্রাম, সোডিয়াম ১১০ মিলিগ্রাম, পটাশিয়াম ৩০৩ মিলিগ্রাম, ক্যালসিয়াম ২৮ মিলিগ্রাম। এছাড়াও এতে আছে আয়রন, সালফার, সেলেনিয়া, ম্যাঙ্গানিজ, কপার এবং ম্যাগনেসিয়ামের মত বেশ কিছু উপকারী উপাদান। গাবের এসব পুষ্টিগুণ আমাদের শরীরকে রক্ষা করে নানা রোগ থেকে।

 

উপকারিতাঃ

 

১। শারীরিক দুর্বলতা কাটাতে গাব ফল ভীষণ উপকারী। এই ফলে আছে প্রচুর পরিমাণে খাদ্য শক্তি বা এনার্জি ও আমিষ। অল্প পরিমাণে গাব খেলেই আমাদের শারীরিক দুর্বলতা কেটে যায়। এছাড়াও এতে থাকা পটাসিয়াম আমাদের নিন্ম রক্ত চাপ কমাতে অনেক সাহায্য করে থাকে। তাই যারা নিন্ম রক্তচাপ জনিত্ত সমস্যায় চুগে থাকেন তারা এই ফলটি খেতে পারেন।

২। গাবে থাকা প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট আমাদের হৃদপিণ্ডে রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখে। আর এতে আমাদের হৃদযন্ত্রের কার্যকারীতা অনেক বেড়ে যায় এবং হার্ট ডিজেসে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা হ্রাস পায়।এছাড়াও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট আমাদের শরীরের বেড়ে ক্যান্সার কোষ বেড়ে উঠতে দেয় না। আর এর ফলে ক্যান্সারের মত রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কমায়।

৩। গাবে আছে পটাশিয়াম, ক্যালশিয়াম, আয়রন, সালফার,সেলেনিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ, কপার এবং ম্যাগনেসিয়ামের মত বেশ কিছু উপকারী উপাদান। যা আমাদের চোখের জন্য অত্যান্ত উপকারী। তাই প্রতিদিন অল্প করে এ ফল খেলে আমাদের দৃষ্টিশক্তির অনেক উন্নতি হয় এবং একই সাথে রাতকানা রোগ থেকে চিরতরে রেহাই পাওয়া যায়। এছাড়াও চোখের এলার্জি সহ অন্যান্য চোখের রোগের প্রকোপ কমাতে এটি অনেক কার্যকরী।

৪। সবাই এখন অতিরিক্ত ওজন কমাতে ব্যস্ত । আর এই সমস্যা সমাধানে গাব ফল বেশ কার্যকরী।গাব অতিরিক্ত ওজন কমাতে খুব ভাল কাজ করে। এছাড়াও গাবে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার বা আঁশ থাকায় এটি আমাদের পরিপাকতন্ত্রের কার্যকারীতা বৃদ্ধি করে হজম শক্তি বাড়ায়। ফলে গ্যাস বা পেটের সমস্যা কমে যায়।

৫। গাবে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট থাকায় এটি খেলে আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। আর এর ফলে আমরা বিভিন্ন রকম সিজিনাল অসুখ থেকে মুক্তি পাই। এছাড়াও গাব খেলে পুরাতন আমাশয়, একজিমা কিংবা বিভিন্ন চর্মরোগ থেকে মুক্তি মেলে।

 

 

অনলাইনে গাছপালা কোথায় পাওয়া যায়ঃ

 

নার্সারির পাসাপাসি গাছপালা কিনতে পারবেন এখন অনলাইনে ।গাছপালা কিনতে ভিজিট করুন নিচে দেয়া নার্সারী লেখার উপর এবং অর্ডার করতে পারেন দেশের যেকোন প্রান্ত থেকেঃ

 

 

নার্সারি

Leave a Comment

Your email address will not be published.