কালকেয়া

1st December 2019 0 Comments

কালকেয়া বহু শাখাপ্রশাখা যুক্ত ঝোপ জাতীয় শক্ত লতা।কালকেয়া গাছের পাতা প্রায় ১ সেন্টিমিটার লম্বা ও আধা সেন্টিমিটার চওড়া। অনেকটা লেবু পাতার মতো গাঢ় সবুজ। কান্ড ও পাতার সংযোগ স্হল থেকে বের হয় ফুল। লতার ডগার দিকেও ফুল হয়। ফুল গুচ্ছবদ্ধ আকারের হয়। অনেকটা বেড়ালের গোঁফের মতো বেগুনি। ফল আধা সেন্টিমিটারের মতো লম্বা ও মসৃণ। বীজ চক্রাকারে স্থাপিত। গ্রীষ্মকালে ফুল ও বর্ষায় ফল ধরে। স্যাঁতস্যাঁতে জঙ্গলে এরা জন্মে। বীজ থেকে বংশবৃদ্ধি ঘটে থাকে। কালকেয়া গাছ বাংলাদেশ ও ভারতে জন্মে। এই গাছের ভেষজ গুণাগুণ রয়েছে।

 

উপকারিতাঃ

 

১। কালকেয়া পাতার রস লাগালে আগুনে পোড়ায় উপকার পাওয়া যায়।

২। কালকেয়া পাতার রস খেলে কাশি দ্রুত সেরে যায়।

৩। শরীরের কোন স্থানে দাদ হলে সেই ক্ষত স্হানে কালকেয়া গাছের ডগার রস লাগালে দাদ দ্রুত সেরে যায়।

৪। কালকেয়ার শিকড় সিদ্ধ করে এই ক্বাথ খেলে পেটের ব্যথায় উপকার পাওয়া যায়। ৫। কালকেয়ার পাতা ও মূল সিদ্ধ করে এই ক্বাথ খেলে শোথ রোগ ভালো হয়।

Leave a Comment

Your email address will not be published.