কাতলা মাছের পুষ্টি মান ও ব্যবহার

8th January 2020 0 Comments

প্রতি ১০০ গ্রাম কাতলে প্রোটিন ১৭.৫ গ্রাম, ফ্যাট ২.০,খনিজ পদার্ধ ১.৫ গ্রাম, আঁশ ১.২ গ্রাম, শর্করা ২.১ গ্রাম, ক্যালসিয়াম ৫১০ মি. গ্রাম, ফসফরাস ২১০ মি.গ্রাম, লৌহ ০.৯ মি.গ্রাম এবং ভিটামিন জাতীয় উপাদানের মধ্যে ০.৮ মি.গ্রাম নায়াসিন পাওয়া যায়। এ ছাড়াও কাতলা মাছে আহার উপযোগী অংশ শতকরা ৯০ ভাগ , জলীয় অংশ ৭৩.৭ ভাগ এবং ১০০ গ্রাম কাতলা মাছ থেকে ১০৫ কেলোরি খাদ্য শক্তি পাওয়া যায়।

মুখোরোচক খাদ্য হিসেবে কাতলা মাছের ব্যবহার ঃ কাতলা মাছ খাওয়া বাঙালি সংস্কৃতির ও ঐতিহ্যের উত্স। স্বাদে সবরকম মাছের মধ্যে রুই মাছের পরই এ মাছের স্থান। ভাজা কাতল, মাছের তরকারি, দোপেঁয়াজা, কোরসা, মুড়োঘন্ট, কালিয়া সকল বাঙালির অতি প্রিয়। বিভিন্ন সামাজিক উত্সবে রুই মাছের কদর ও ব্যবহার অধিক হয়ে থাকে। বর্তমানে ৩ থেকে ৪ কেজি ওজনের একটি কাতল মাছের খুচরা মূল্য ১২০০ থেকে ১৫০০ টাকা এবং বাজার চাহিদা অধিক।

Leave a Comment

Your email address will not be published.