কলাপাতার কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা

14th November 2019 0 Comments

কলা পাতা খাওয়া হচ্ছে দক্ষিণ ভারতের ভাত পরিবেশনের ঐতিহ্যবাহী পদ্ধতি।প্রাচীনকালে বাংলাদেশ সহ কলাগাছ জন্মে দক্ষিণ এশিয়ার অঞ্চলসমূহে বিবাহ, শ্রাদ্ধ, চল্লিশায় কলাপাতায় ভাত পরিবেশনের প্রচলন ছিলো। দক্ষিণ ভারত সংলগ্ন মালয়েশিয়া এবং সিংগাপুরেও অভিবাসী দক্ষিণ ভারতীয়দের কল্যাণে কলাপাতা ভাতের দেখা পাওয়া যায়।
শৈশবে অনেকেই খেলার ছলে কলাপাতায় খাবার খেয়েছেন শখ করে। তবে বড় হয়ে নিশ্চয়ই শখ করেও আর কলাপাতায় খাওয়া হয় না। একটা সময় শুধু শখ করেই নয়, বরং গ্রাম-গঞ্জে বড় ধরনের কোনো অনুষ্ঠান হলেই কলাপাতায় খাবার পরিবেশন করাটা ছিল একটা রেওয়াজ।কিন্তু কখনো কি পাতার স্বাস্থ্য উপকারিতা নিয়ে ভেবেছেন? হয়ত না, কলাপাতারও কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে আজকের লেখায় থাকছে সেসব উপকারিতাই।

 

আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক কলাপাতা স্বাস্থ্যের জন্য কতটা উপকারীঃ

 

১। শ্বাসকষ্ট, সর্দি-কাশিতে কলাপাতার রস খুবই উপকারী। চর্মরোগ, আমাশা, কোষ্ঠকাঠিন্য, রক্তস্বল্পতা এমনকি লিভারের সমস্যায়ও কলাপাতার রস অত্যন্ত কার্যকরী।

২। কলাপাতা খুব সহজেই মাটির সঙ্গে মিশে যায় তাই পরিবেশ দূষণের কোনো আশঙ্কা থাকে না।

৩। কলাপাতায় পলিফেনল নামের একটি অ্যান্টি অক্সিডেন্ট উপাদান থাকে। যা গ্রিন টিতেও পাওয়া যায়। কলাপাতায় খাবার খেলে খাবারের সঙ্গে এই পলিফেনল মিশে শরীরে প্রবেশ করে। এই পলিফেনল যুক্ত খাবার খেলে শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

৪। স্টিলের বা কাচের প্লেট খুব ভালো করে ধোয়ার পরও সাবান বা ডিটারজেন্টের রাসায়নিক কণা প্লেটে লেগে থাকতে পারে। কিন্তু কলাপাতায় খাবার খেলে খাবার থাকে রাসায়নিকমুক্ত।

৫। কলাপাতায় এক ধরনের ভেষজ মোমের প্রলেপ থাকে। যখন গরম খাবার কলাপাতায় পরিবেশন করা হয়, তখন মোমের প্রলেপ গলে গরম খাবারের সঙ্গে মিশে যায়। যা  খাবারে এনে দেয় অন্যরকম স্বাদ।

 

অনলাইনে গাছপালা কোথায় পাওয়া যায়ঃ

 

নার্সারির পাসাপাসি গাছপালা কিনতে পারবেন এখন অনলাইনে ।গাছপালা কিনতে ভিজিট করুন নিচে দেয়া নার্সারী লেখার উপর এবং অর্ডার করতে পারেন দেশের যেকোন প্রান্ত থেকেঃ

নার্সারি

 

 

Leave a Comment

Your email address will not be published.