ওয়েস্টার মাশরুমের বীজ উৎপাদন পদ্ধতিঃ

3rd December 2019 0 Comments

 

 

মাশরুমের বীজ কি?

মাশরুমের সূত্রাকার মাইসেলিয়াম, মাশরুমের বীজ বা স্পন হিসেবে ব্যবহৃত হয়। এই স্পন বা বীজ ল্যাবরেটরিতে সাধারণত দুইটি পদ্ধতিতে বিশেষ যন্ত্রপাতি ও দক্ষ কর্মীর মাধ্যমে উৎপাদন করা সম্ভব যেমনঃ (১) টিস্যু কালচার পদ্ধতি (২) স্পোরকালচার পদ্ধতি। টিস্যু কালচার পদ্ধতিতে জাতের বিশুদ্ধতা বজায় রেখে রোগমুক্ত বীজ উৎপাদন করা সম্ভব। টিস্যু কালচার পদ্ধতিতে বীজ উৎপাদন করতে হলে একটি টিস্যু কালচার ল্যাবরেটরি স্থাপন করা প্রয়োজন। স্বল্প খরচে টিস্যু কালচার ল্যাবরেটরির জন্য নুন্যতম নিম্ন লিখিত কক্ষসমুহ প্রয়োজন।

(১) টিস্যু কালচার ইউনিট

(ক) ওয়ার্কসপ          :  মাদার কালচার তৈরি ও অটোক্লেভকরনের জন্য ব্যবহৃত কক্ষ।

(খ) ইনোকুলেশন রুম   : টিস্যু কালচার তৈরি ও ইনোকুলেশনের জন্য ব্যবহৃত কক্ষ।

(গ) ইনিকুউবেশন       : মাদার কালচার বর্ধনের জন্য এসি সংযুক্ত করন।

(ঘ) স্টোর রুম          : প্রয়োজনীয় উপকরণ সংরক্ষণ জন্য ব্যবহৃত কক্ষ।

 

 

 অনলাইনে মাশরুম কোথায় পাওয়া যায়ঃ

দেশের খুব কম যায়গায় এই মাশরুম পাওয়া যাআয় তবে অনলাইনে অর্ডার করলে আপনি মাশরুম পেয়ে যাবেন আপনার বাসায় । অর্ডার করতে নিচে দেয়া মাশরুম লেখা লিঙ্কে ক্লিক করুনঃ

 

মাশরুম

Leave a Comment

Your email address will not be published.