অস্ট্রেলিয়ান ফিনচ পাখি পালন করবেন কিভাবে ?

অস্ট্রেলিয়ান ফিঞ্চ পাখি
22nd September 2019 0 Comments

পৃথিবীতে অনেক প্রজাতির ফিন্চ পাখি আছে। এদের একটি জেব্রা ফিন্চ। জেব্রার মতো ডোরাদাগ আছে বলেই হয়তো এই নামকরণ। শখের পাশাপাশি দেখা গেছে স্কুল, কলেজের ছাত্ররা অনেকেই আজকাল কেইজ বার্ড পালন করে পড়ালেখার খরচ মেটাচ্ছেন। অনেকে আবার বিভিন্ন প্রকার পাখি পালন করে জীবিকা নির্বাহ করছে এবং অনেকে স্বাবলম্বিও হচ্ছেন। বাংলাদেশে কেইজ বার্ড হিসেবে পরিচিত পাখির মধ্যে জেব্রা ফিন্চ বেশ জনপ্রিয়। এই পাখি ঘাসভূমি ও বনাঞ্চলের প্রশস্থ অঞ্চল ও পানির কাছাকাছি জায়গায় বাস করে। এরা ‘বিপ’, ‘মিপ’, ‘ওই’ বা ‘এ্যাহা’ উচ্চারণে ডাকে।

পালন পদ্ধতি

 

জেব্রা ফিন্চ সাধারণত মধ্য অস্ট্রেলিয়ার আবহাওয়ার উপযোগী। বর্তমানে আমাদের দেশে শৌখিন ও বাণিজ্যিকভাবে পালিত হচ্ছে। পালনের জন্য প্রশিক্ষণের প্রয়োজন নেই। শখের জন্য পালতে চাইলে পাখির দোকানে গেলেই হবে।

দরকার পড়বে ছোট একটি খাচা। দাম পড়বে ১৫০ থেকে ২০০ টাকা। খাবারের পাত্র ২০ টাকা। পানির পাত্র ১৫ টাকা ও ডিম পাড়ার হাঁড়ি ২০ টাকা।

ডিম পাড়ার পাত্র হিসেবে বাঁশের ঝুড়িও ব্যবহার করা যায়। ঝুড়িটি খাঁচার এক কোণে ঝুলিয়ে রাখলেই চলবে। এর মধ্যে শুকনো দূর্বাঘাস ও নারকেলের ছোবড়া দিয়ে রাখলে ওরা সুন্দর করে হাঁড়ির মধ্যে বাসা বাঁধবে। এছাড়া পাটের বস্তা বৃত্তাকারে কেটে ঝুড়িতে বসিয়ে দেওয়া যায়।

প্রাথমিক অবস্থায় বাণিজ্যিকভাবে পালন করতে তেমন খরচ হবে না। প্রতিজোড়া পাখির জন্য একটি করে ছোট আকারের খাঁচা ব্যবহার করাই ভালো। বড় খাঁচায় একসঙ্গে কয়েক জোড়া পালন করা যায়। তবে এতে ঝুঁকি আছে। কারণ এরা প্রচুর পরিমাণে মারামারি করে। ফলে পাখি ও ডিমের ক্ষতি হয়।

প্রতি জোড়া জেব্রা ফিন্চ বা সাদা ফিন্চ পাখির দাম হবে ৫শ’ থেকে ৭শ’ টাকা। স্ট্রবেরি নামেও ফিন্চ আছে। দেখতে স্ট্রবেরি ফলের রংয়ের মতো। ব্যবসায়ীরা স্টার ফিন্চ হিসেবে চেনে। এদের দাম একটু বেশি। আরও বেশি দামেরও ফিন্চ আছে।

 

খাবার

এদের খাদ্য ছোট বীজদানা। সব সময়ের জন্য পানি দিয়ে রাখতে হয়। পাখির খাবারের দোকানে খুব সহজে এদের খাবার প্রতি কেজি কাউন ও চিনা একত্রে ৩০ টাকায় পাওয়া যায়।

রোগ ও এর প্রতিকার

রোগ বালাইয়ে সবাই আক্রান্ত হয় এটাই স্বাভাবিক। সেটার প্রতিকারও আছে। দিনে সূর্যের আলো পায় এমন জায়গায় রাখাই ভালো। এতে ঠাণ্ডা লাগা থেকে রেহাই পাবে। শীত মৌসুমে লাইট জ্বালিয়ে রাখা যেতে পারে। যদি ঠাণ্ডা লেগেই যায় তবে ঠাণ্ডা প্রতিরোধক বড়ি বা সিরাপ পানির সঙ্গে মিশিয়ে খাওয়াতে হবে।

১৫ দিন পর পর ভিটামিন-জাতীয় বড়ি বা ক্যাপসুল পানির সঙ্গে অল্প পরিমাণ মিশিয়ে ৩/৪ দিন পর্যন্ত দিলে রোগ প্রতিরোধ ও প্রজনন ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

অনলাইনে পাখি কোথায় পাওয়া যায়ঃ

দোকানের পাশাপাশি পাখি এখন অনলাইনে অর্ডার করে কিনতে পারবেন। অর্ডার করতে নিচে দেয়া পাখি লেখার উপর ক্লিক করুনঃ

পাখি

 

 

 

Leave a Comment

Your email address will not be published.